Today is  
 
Untitled Document
শিরোনাম : ||   টেকনাফে দুই লাখ ৬০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার      ||   খালেদা জিয়ার জামিনের মেয়াদ বাড়লো      ||   প্রধানমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাত করেছেন সাংসদ কমল সহ নেতৃবৃন্দ      ||   কক্সবাজার এখন ‘ব্যয়বহুল’ শহর: সব ক্ষেত্রে বাড়বে সুবিধা      ||   রজনীকান্তের সঙ্গে বিয়ার গ্রিলসের অভিযান      ||   পেকুয়ায় সিএনজি উল্টে যাত্রী নিহত      ||   ইয়াবা কারবারিদের নতুন তালিকা: শিগগিরই অভিযান      ||   পাকিস্তান থেকে দেশে ফিরেছেন টাইগাররা      ||   কক্সবাজারের সাবেক ডিসি সাজ্জাদুল হাসান বিমানের নতুন চেয়ারম্যান      ||   মিয়ানমারের উপর ভ্রমন নিষেধাজ্ঞা আসতে পারে ট্রাম্পের      ||   রোহিঙ্গাদের এইডস আর যক্ষ্মা রোগ নিয়ে উদ্বিগ্ন      ||   নিজ মাকে হত্যার বর্ণনা দিলেন মেয়ে      ||   রোহিঙ্গাদের বিষয়ে আইসিজের অন্তর্বর্তী আদেশ : এখান থেকে কোথায় যাব?      ||    ৮৩ জন আরোহী নিয়ে আফগানিস্তানে বিমান বিধ্বস্ত      ||   পাকিস্তানে বৃষ্টিতে পিছিয়েছে বাংলাদেশ ম্যাচ     
প্রকাশ: 2020-01-28     নিউজ ডেস্ক দেশজুড়ে

মানিকগঞ্জে দিনেদুপুরে গৃহবধূ মাহমুদা বেগমকে (৪৫) হত্যার রহস্য উন্মোচন করেছে পুলিশ। প্রেমিকের সঙ্গে বিয়ে দিতে রাজি না হওয়ায় মা মাহমুদা বেগমকে পরিকল্পিতভাবে প্রেমিক ও তার সহযোগিদের দিয়ে হত্যা করান মেয়ে জুলেখা আক্তার জ্যোতি। হত্যাকাণ্ডের সহযোগী ছিল প্রেমিক ও তার তিন বন্ধু।

সোমবার রাতে পুলিশের পক্ষ থেকে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এই তথ্য জানানো হয়। এ ঘটনায় নিহতের মেয়ে জুলেখা আক্তার জ্যোতি, প্রেমিক নাঈম ও তার বন্ধু রাকিবকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সোমবার দুপুরে আসামিরা মানিকগঞ্জ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের সিনিয়র বিচারক শাকিল আহম্মেদের আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মানিকগঞ্জ সদর থানা পুলিশের উপ-পরির্দশক (এসআই) শামীম আল মামুন জানান, গত নভেম্বরে স্বামীর সঙ্গে জ্যোতির বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। এরই মধ্যে ফেসবুকের মাধ্যমে ঢাকার কেরানীগঞ্জের আরাকুল গ্রামের নাঈমের সঙ্গে তার সম্পর্ক গড়ে ওঠে। নিজেরা বিয়ের জন্য প্রস্তুতিও নেন। কিন্তু বাধ সাজেন জ্যোতির মা মাহমুদা বেগম। তিনি মেয়েকে অন্যত্র বিয়ে দেয়ার জন্য চেষ্টা চালাচ্ছিলেন। পাশাপাশি মেয়েকে শাসনও করতেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে প্রেমিক নাঈমকে সঙ্গে নিয়ে জ্যোতি নিজের মাকে হত্যার পরিকল্পনা করেন।

ঘটনার আগের দিন ২১ জানুয়ারি রাতে প্রেমিক নাঈম, রাকিবসহ আরও দুই বন্ধু জ্যোতির শোয়ার ঘরে অবস্থান নেন। বন্ধুদের ভাড়া করা হয় দেড় লাখ টাকায়। এর মধ্যে জ্যোতি তার স্বর্ণালংকার এবং নগদ ১৬ হাজার টাকা দেয় হত্যাকারীদের। রাতেই হত্যাকাণ্ড ঘটনার পরিকল্পনা থাকলেও তা সম্ভব হয়নি।

এসআই শামীম আল মামুন আরও জানান, ২২ জানুয়ারি (বুধবার) সকালে জ্যোতির বাবা জহিরুল ইসলাম আলিয়ার প্রাতর্ভ্রমণে বাড়ির বাইরে যান। আর মা মাহমুদা বেগম সেলাই মেশিনে কাজ করার জন্য বসেন। এই সুযোগে মাহমুদা বেগমের রুমে ঢোকেন নাঈমসহ আরও দুইজন। এরা রুমে ঢুকেই মাহমুদা বেগমকে গলা টিপে হত্যা করেন।

হত্যাকাণ্ডকে ডাকাতির ঘটনা সাজিয়ে ওই সময় বক্তব্য দেন জ্যোতি আক্তার। পুলিশ ও সংবাদকর্মীদের তিনি জানান,পাশের রুমে তার হাত-পা বেঁধে ৪/৫ জন দুর্বৃত্ত ঘরে ঢুকে তার মাকে হত্যা করেছে।

কিন্তু কথাবার্তায় সন্দেহ হওয়ায় ঘটনার দিনই জ্যোতিকে আটক করে পুলিশ। পরে তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে গ্রেপ্তার করা হয় প্রেমিক নাঈম ও রাকিবকে। অন্য দুজনকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। কোর্টে হাজির করার পর জ্যোতিকে চারদিনের রিমান্ডে নেয়া হয়। আদালতে জ্যোতি আক্তার রোববার (২৬ জানুয়ারি) ও অপর দুই আসামি রাকিব ও নাঈম সোমবার (২৭ জানুয়ারি) আদালতে ১৬৪ ধারায় দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গত ২২ জানুয়ারি সকাল ১০টার দিকে মানিকগঞ্জ শহরের দক্ষিণ সেওতা গ্রামে ব্যবসায়ী আলিয়ার রহমানের স্ত্রী মাহমুদা বেগমকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়। হত্যাকণ্ডের পর তার মেয়ে জ্যোতি পুলিশ ও সাংবাদিকদের বলেছিলেন- ৪/৫ জন অজ্ঞাত দুর্বৃত্ত তার হাত-পা বেঁধে রেখে তার মাকে হত্যা করে পালিয়ে যায়।


দেশজুড়ে
নিজ মাকে হত্যার বর্ণনা দিলেন মেয়ে

রোহিঙ্গা নারীকে জন্মসনদ দেয়ায় ইউপি চেয়ারম্যান কারাগারে

মজনু ৭ দিনের রিমান্ডে

‘সাংবাদিক’ পরিচয়ের আড়ালে অপহরণকারী এরা!

রোববার পুলিশ সপ্তাহ শুরু

যৌন নির্যাতনের শিকার সেই ছাত্রীর মৃত্যু

প্রেমে ব্যর্থ হয়ে মাইকে ঘোষণা দিয়েই আত্মহত্যা!

ইয়াবাসহ টেকনাফের শফিক ঢাকা বিমানবন্দরে আটক

হালনাগাদ ভোটার তালিকা প্রকাশ ১ মার্চ

মাছের বক্সে ১১ হাজার ইয়াবা, আটক ৪

 

উপদেষ্টা সম্পাদক: আবু তাহের
সম্পাদক: বিশ্বজিত সেন
প্রকাশক: আবদুল আজিজ

 

কক্সবাজার প্রেসক্লাব ভবন (২য় তলা),
শহীদ সরণি (সার্কিট হাউস রোড), কক্সবাজার।
ফোন:
০১৮১৮-৭৬৬৮৫৫, ০১৫৫৮-৫৭৮৫২৩।


ইমেইল :

news.coxsbazarvoice@gmail.com
  Copyright © Coxsbazarvoice 2019-2020, Developde by JM IT SOLUTION